সফলতার একমাত্র সূত্রটি কি জানতে চান ?

0
271
জন পড়েছেন
সফলতার একমাত্র সূত্র, সফলতার সূত্র কি, সফল হওয়ার উপায়, কিভাবে সফল মানুষ হবেন, সফলতার একমাত্র সূত্রটি কি জানতে চান

স্বাগতম !! পাই ফিঙ্গারস মতিভেশনে আপনার উপস্থিতির অর্থ হল, আপনি যদি আপনার মাপকাঠিতে এখনও সফল না হয়ে থাকেন তাহলে মনের গভীর থেকে আপনি সফল হতে চান। কিন্তু কিছু ব্যাপার আপনাকে সফল হতে দিচ্ছে না এবং খুব নিষ্ঠুর ভাবে আপনার সফলতার পথ আটকে বসে আসে।

প্রথমেই আপনাকে নিশ্চিত করছি আপনি যে সমস্যা অনুভব করছেন সেটা শতকরা ৯০ ভাগ সফল মানুষ অনুভব করেছে। আপনি যে সমস্যা গুলো মুখ কালো করে পার করছেন, সেই সমস্যাগুলোই শতকরা ৯০ ভাগ সফল মানুষ হাসি মুখে পার করেছে। এই পর্যন্ত আপনার এবং একজন সফল মানুষের মাঝে কোন পার্থক্য নেই।

কিন্তু বাস্তবতা হল, যারা এই সমস্যাগুলো পার হতে পারে তারাই সফলতার খাতায় নিজের নেম প্লেটটি লাগাতে পারে। সূত্রটি বলার আগে আসুন আপনার সীমাবদ্ধতাগুলো একটু দেখে নেই।

আপনি কি দেখতে সুন্দর না। প্রথম দর্শনেই আপনি সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেন না?? আপনাকে দেখা মাত্রই সকলে আপনার সাথে কথা বলতে এগিয়ে আসে না? অথচ অনেকেই আছে যারা তাদের বাহ্যিক সৌন্দর্যের কারনে যে কোন জায়গায় গেলেই সবাইর কেন্দ্রবিন্দু হয়ে যায়।

কিন্তু আপনি কি নেলসন মেন্ডেলাকে চেনেন? দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি এবং এক নোবেল পুরস্কার বিজয়ী নাগরিক।

অপরাহ উইনফ্রের কথা মনে আছে। যার টেলিভিশনের সামনে দাঁড়ানোর মত সৌন্দর্য ছিল না অথচ তিনি আজ তুমুল জনপ্রিয় ও অসংখ্য পুরস্কার জয়ী উপস্থাপক। বিশ্বের প্রভাবশালী নারীদের একজন।

আপনার শারীরিক উচ্চতা কম ?  আপনি নিশ্চয় আমির খান, সচিন টেন্ডুলকার, মহাত্মা গান্ধীকে চেনেন, তাদের সবার উচ্চতাই কিন্তু মাত্র ৫/৫ ইঞ্চি, মাদার তেরেসার উচ্চতা ছিল মাত্র ৫ ফিট। আমেরিকার সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ধনী হিসেবে খ্যাত এন্ড্রু কার্নেগীর উচ্চতা ছিল মাত্র ৫/৩ ইঞ্চি। তাদের উচ্চতা কখনো তাদের সফলতার পথে বাধা হয়ে দাড়াতে পারেনি। আপনার উচ্চতা যাই হোক সেটা কখনো আপনার সফলতার পথের বাধা নয়।

আপনি কি শারীরিক ভাবে পরিপূর্ণ না?? আপনার হাত নেই বা পা নেই বা মানসিক প্রতিবন্ধী কিংবা চোখে দেখতে পাননা ?? তাহলে নিক ভুজিসিক কে দেখুন, সম্পূর্ণ হাত-পা বিহীন একজন মানুষ কিভাবে হাসি মুখে পৃথিবীর অন্যতম আলোচিত ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছেন।

সাকিব শেখ, সাত বছর বয়সে চোখের জ্যোতি হারিয়েছে । সম্পূর্ণ অন্ধ এই মানুষটি আইটি জায়ান্ট মাইক্রোসফট এর কোর ডেভেলপারদের একজন।
আপনার বাবার টাকা নেই কিংবা আপনি অত্যন্ত গরীব পরিবারে বড় হচ্ছেন?? ডঃ এপিজে আবুল কালাম স্যারের কথা মনে করুণ। তার বাবা ছিলেন একজন সামান্য জেলে।
নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারে বড় হওয়া ছেলেটি যে মাত্র ছয় বছর বয়সে ষ্টেশনে চা বিক্রি করেছে তিনি ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

বাস্তবতা হল, দারিদ্রতা, শারীরিক প্রতিবন্ধকতা, মেধা স্বল্পতা কোন কিছুই আপনার ব্যর্থতার পথে বাধা হয়ে দাড়াতে পারবে না। আপনার ব্যর্থতার একমাত্র বাধা হল আপনি নিজেই।

একটি বাস্তব উদাহরণ মনে রাখবেন, যে জমিতে আগাছা বেশি হয়, সে জমিতে ফলনও বেশি হয়। আপনার যত বেশি বাধা এবং প্রতিবন্ধকতা, আপনার যত বড় সমস্যা মনে রাখবেন প্রকৃতি আপনার জন্য তত বড় অর্জন সংরক্ষন করে রেখেছে।

কিন্তু আমরা খুঁড়তে খুঁড়তে শেষ মুহূর্ত থেকে ফিরে আসি, অথবা বিভিন্ন জায়গায় একটু একটু খুঁড়তে থাকি। ফলে নিজের ভেতরে লুকিয়ে রাখা গুপ্তধন কখনই বেরিয়ে আসে না। কারন আপনি বার বার ভুলে যান, পৃথিবীর সবচে বড় গুপ্তধন আপনি নিজেই। প্রতিটি মানুষই এক একটি আলাদিনের প্রদিপ, এক একটি পরশ পাথর।

পৃথিবীর সমস্ত সফল মানুষের সফলতার সূত্র একটিই।মার্ক জাকারবারগ , স্টিভ জবস, বিল গেটস , বারাক ওবামা, নিলসন মেন্ডেলা, আইন স্টাইন, মাইকেল জ্যাকসন, রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর, শাহ্রুখ খান, টম ক্রুজ, আর্নল্ড শেয়ারজনেগার।

যার কথাই বলুন পৃথিবীতে সফল হওয়ার কেবল একটাই সূত্র, আর তা হল কাজ , কাজ এবং কাজ। আপনাকে কাজ করতে হবে। সব কিছু ভুলে কাজ করতে হবে। পাগলের মত কাজ করতে হবে। নদীর মাঝখানে আপনার লঞ্চ বা ট্রলারটি ডুবে গেলে যেভাবে আপনি নিজেকে এবং নিজের পড়িবারকে বাঁচানর চেষ্টা করবেন সেভাবে নিজের স্বপ্নকে বাঁচানোর জন্য মরিয়া হয়ে কাজ করতে হবে। আপনার মেধা কম, আপনাকে কাজ করতে হবে, আপনার বাবার টাকা নাই আপনাকে আরও বেশি কাজ করতে হবে, আপনি বার বার ব্যর্থ হচ্ছেন আপনাকে কাজ করতে হবে।

মনে রাখবেন একমাত্র কাজই আপনার জীবনকে বলদে দিতে পারে।

আপনার আশে পাশে যদি এমন কোন মানুষ থাকে যার এই লেখাটি পড়া উচিত বলে মনে করেন , তার সাথে অবশ্যই শেয়ার করবেন । অনুপ্রেরণামূলক গল্প, সফল ব্যক্তিদের জীবনী, সফলতার সূত্র এবং জীবনের নানান সমস্যা আপনাদের পাশে আছে পাই ফিঙ্গার্স মোটিভেশন । আর আগামী পর্বে আপনি কোন বিষয়ে লেখা চান কমেন্ট করে জানান । ভাল থাকুন ।

সফলতা কেবল আপনার জন্যই ।  

Facebook Comments
SHARE